ভারতে আতংকে দিন কাটছে চাইনিজদের

boycott china
ভারত জুড়ে শুরু হয়েছে "চায়না বয়কট" এবং " চায়নাকে উচিত শিক্ষা" নামে স্লোগান

চীন এবং ভারত দুদেশের মধ্যে সীমান্ত উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ছে দেশের মধ্যেও। ইতিমধ্যে ভারতের নাগরিক পর্যায় থেকে ঘোষণা এসেছে চীনা পণ্য বয়কটের।

ব্যবসাসহ বিভিন্ন কারনেই চীনের নাগরিক রয়েছে ভারতে। তবে সীমান্ত নিয়ে দুদেশের মধ্যে যুদ্ধের পর চীনের নাগরিক ভারতে ভয়ের মধ্যে বাস করছে। আবার এই মুহূর্তে অনেকের জন্যই চীনে আসা সম্ভব না। তারা ভয়ে শুধু বাসার মধ্যেই বসবাস করছে।

ভারত চীন অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক পরিষদের মহাসচিব জানান ” এই মুহূর্তে চাইনিজ পরিবারগুলো মিডিয়ার সাথে কথা বলতে চাইনা। তারা বাড়ির বাইরে ও বের হচ্ছেনা এবং ভীষণ উদ্বিগ্ন তাদের নিরাপত্তা নিয়ে। তারা এখন শুধুই দেশে ফেরত যেতে চাইছে”। তিনি আরো বলেন সোমবারের সীমান্ত যুদ্ধের পর অনেক ভারতীয় মিডিয়াই তাদেরকে ফোন দিয়ে এসব বিষয়ে জানতে চাইছে।

এদিকে ভারত জুড়ে শুরু হয়েছে “চায়না বয়কট” এবং ” চায়নাকে উচিত শিক্ষা” নামে স্লোগান। অনলাইন এবং অফলাইন দুভাবেই চলছে এই স্লোগান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভারতে মোবাইল কোম্পানির কাজ করতে আসা একজন বলেন ” সীমান্তে উত্তেজনা বাড়ছে এবং এ নিয়ে আলোচনাও হচ্ছে। এবং আমি জানি ভারতীয়রা অনেক উদার মনের মানুষ তাই আমি আমার পরিবারকে বলেছি এ নিয়ে চিন্তার কিছু নেই”।

কাজ এবং পড়াশোনার জন্য দুদেশের নাগরিক দুদেশে আছে। তবে এই মুহূর্তে অনেকেই এই বিষয় নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন রয়েছে। চীনে পড়াশোনা করতে আসা এক ভারতীয় জানায় তিনি এই বিষয়টি জানেন কিন্তু চীনে তিনি বেশ নিরাপদেই আছে। এখানে ভারতীয়দের মত এমন কোন স্লোগান বা জাতীয়তাবাদের উত্থান হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here